২য় দিনের মতো শিক্ষার্থীদের রাস্তা অবরোধ ও বিক্ষোভ: শিমরাইল এবং চাষাঢ়া উত্তাল

রাজধানীর উত্তরায় গাড়ি চাপায় দুই শিক্ষার্থী নিহত এবং শিক্ষার্থীদের উপর পুলিশের নির্যাতনের প্রতিবাদে নারায়ণগঞ্জ আজও উত্তাল। দ্বিতীয় দিনের মতো সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করছে শিক্ষার্থীরা। বৃহস্পতিবার সরকার সারা দেশের সব স্কুল বন্ধ ঘোষণা করলেও সকাল দশটা থেকে বৃষ্টিকে উপেক্ষা করে বিভিন্ন স্কুল ও কলেজের ছাত্র-ছাত্রীরা মিছিল নিয়ে শহরের চাষাঢ়ায় বিজয় স্তম্ভের সামনে এসে অবস্থান নেয়। পৌনে এগারোটার দিকে তারা বঙ্গবন্ধ সড়ক, নবাব সলিমুল্লাহ সড়ক এবং ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ লিংক রোডের মুখে অবস্থান নিয়ে সব ধরনের যানবাহন চলাচলে বাধা সৃষ্টি করে। এসময় সড়কগুলিতে শত শত যানবাহন আটকা পরে দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়। বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা কয়েকটি যানবাহন ভাংচুরও করে।

তারা শিক্ষার্থী হত্যার বিচার, নিরাপদ সড়ক ও নৌ পরিবহন মন্ত্রীর পদত্যাগসহ ৯ দফা দাবী দ্রুত বাস্তবায়নের দাবি করে মিছিল শ্লোগান দেয় এসময় নারায়ণগঞ্জের প্রাণকেন্দ্র চাষাঢ়ায় অচল অবস্থার সৃষ্টি হয়।

এদিকে একই দাবীতে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জের শীমরাইল মোড়ে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করে স্থানয়ি বিভিন্ন স্কুল কলেজের শিক্ষার্থীরা। এতে যানবাহন আটকা পড়ে মহাসড়কে যানজটের সৃষ্টি হয়। তবে বুধবারের মতো কোন পরিবহন মালিক ও শ্রমিক সংগঠনের কাউকে বৃহস্পতিবারের আন্দোলনে মাঠে নামতে দেখা যায়নি।

আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা জানান, তাদের ৯ দফা দাবী বাস্তবায়নের ব্যাপারে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী গতকাল যে আশ।বাস দিয়েছেন তা দ্রুত বাস্তাবায়ন চান।
এদিকে শিক্ষার্থীদের আন্দোলন ঘিরে শহরের চাষাঢ়াসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে ব্যাপাক পুলিশ মোতায়েন করা হয়। সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কামরুল ইসলাম জানান, শিক্ষার্থীরা শান্তিপূর্ণভাবে তাদের আন্দোলন করছে। তাদেরকে আমরা বুঝিয়েছি, যেন কারো জানমালের ক্ষতি না করে। তারা আমাদের আশ্বাস দিয়েছে। শিক্ষার্থীরা যাতে উশৃংখল হতে না পারে এবং আমরা সাধারণ মানুষের নিরাপত্তা রক্ষায় পুলিশ প্রশাসন কঠোর নজরদারি অব্যাহত রেখেছে।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

%d bloggers like this: