সরকারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে পরীক্ষার ফি বানিজ্য তুঙ্গে

মহানগর(নিউজ বন্দর ২৪): নারায়ণগঞ্জ সরকারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে চলছে অর্ধবার্ষিক পরীক্ষার ফি বানিজ্য। যেখানে কিছু বেসরকারী হাই স্কুল পরীক্ষার ফি ৩০০/ টাকা নিচ্ছে সেখানে সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে জনপ্রতি পরীক্ষার ফি নিচ্ছে ৪৫০/ টাকা।
বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকসহ কতিপয় শিক্ষক এই বানিজ্যে জড়িত বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।
জানা যায়,সরকারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে মাসিক বেতন শিক্ষার্থীদের টিফিন বাবদসহ ১৩০/ টাকা নেয়া হয়। অথচ আর্থিক ভাবে লাভবান হতে প্রধান শিক্ষক আবুল কালাম মোস্তফা, তার অনুসারী কয়েক জন শিক্ষক পরীক্ষার ফি ৪৫০/ টাকা করে আদায় করছে সরকারের আইন বহিভূর্তভাবে।
এতে করে তারা কয়েক লাখ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক অভিবাবকগন জাগো নারায়ণগঞ্জ ২৪.কমকে বলেন,
বেসরকারি স্কুলে ৩০০/ টাকা পরীক্ষার ফি নিতে পারলে সরকারী স্কুলে ৪৫০/ টাকা করে নেয়া হচ্ছে যেন দেখার কেউ নেই। অথচ জেলা প্রশাসক অত্র স্কুলের সভাপতি। তার স্কুলে যদি ৪৫০/ টাকা করে নেয়া হয় বেসরকারী স্কুল গুলো নিলে কিছু বলার থাকবেনা।
এ ব্যাপারে সরকারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আবুল কালাম মোস্তফার বক্তব্য জানতে স্কুলে গেলে সাক্ষাৎ দেননি। পরে মুঠোফোনে জানান, সাবেক প্রধান শিক্ষক রেবেকার আমল থেকে ৪৫০/ টাকা করে নেয়া হয়। আমরা রঙ্গিন প্রশ্ন পত্র দেই বলে খরচ বেশী।
জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার শফিকুল ইসলামের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন সাড়ে ৩শ টাকা করে নিচ্ছে বলে আমাকে প্রধান শিক্ষক জানিয়েছে। সরকারী নিয়মের বাইরে বেশী টাকা নেয়া ঠিক নয়।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

%d bloggers like this: