শেখ হাসিনার নেতৃত্বে উন্নয়নের মহাসড়কে বাংলাদেশ-ভিপি বাদল

স্টাফ রিপোর্টার: নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট আবু হাসনাত মোঃ শহিদ বাদল (ভিপি বাদল) বলেছেন, ‘শেখ হাসিনার নেতৃত্বে উন্নয়নের মহাসড়কে বাংলাদেশ আজ হাটছে। পদ্মা সেতু, কর্ণফূলী ট্যানেল, মেট্রোরেল সহ বিভিন্ন মেগা প্রকল্প বাস্তবায়ন হচ্ছে। ভারতীয় রুপির চেয়ে বাংলাদেশের টাকার মান বেড়ে গেছে। বিশ্বের কাছে বাংলাদেশ আজ বিস্ময়। সবকিছুই সম্ভব হচ্ছে জাতির জনকের কন্যা শেখ হাসিনার অবিচল আস্থা ও সাহসী নেতৃত্বের জন্য। তিনি আরও বলেন, বিএনপি তাদের নিজস্ব কারণে রাজনৈতিকভাবে পিছিয়ে পড়েছে। তারা ক্ষমতায় থাকাকালে আমাদের উপর অনেক অত্যাচার ও নির্যাতন চালিয়েছে। কিন্তু শেখ হাসিনার নির্দেশে বিএনপি’র কারোর গায়ে ফুলের টোকা পর্যন্ত দেয়া হয়নি। এটাই শেখ হাসিনার রাজনীতি। এই শোকের মাসে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, তাঁর পরিবারের সকল শহীদ সদস্য ও ২১শে আগস্টে গ্রেনেড হামলায় নিহত সকল শহীদদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করছি’।

২৮ আগস্ট ২০১৯ বুধবার বিকেলে বন্দর উপজেলাধীন মদনপুর ইউপি’র ৮নং ওয়ার্ডের পূর্ব কেওঢালায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদাৎ বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ্যে আয়োজিত আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে আবু হাসনাত মোঃ শহিদ বাদল এসব কথা বলেন।

মদনপুর ইউনিয়ন ৮নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হাজী মোঃ শফিউল্লাহ’র সভাপতিত্বে, বন্দর উপজেলা বঙ্গবন্ধু সৈনিক লীগের সভাপতি হাবিবুর রহমান হাবিবের সঞ্চালনায় ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ নেতা জুয়েল ভূঁইয়া’র সার্বিক ব্যবস্থাপনায় উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা হিসেবে বন্দর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বন্দর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীরমুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব এম এ রশিদ, বিশেষ অতিথি হিসেবে মদনপুর ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব এম এ সালাম, ধামগড় ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মাসুম আহম্মেদ, বন্দর উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সালিমা হোসেন শান্তা, বন্দর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এম এ রউফ, প্রচার সম্পাদক হাবিবুর রহমান মিয়া, শ্রম বিষয়ক সম্পাদক সোনা মিয়া, ২৬নং ওয়ার্ডের সাবেক কাউন্সিলর আনোয়ার হোসেন আনু, আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুল আজিজ দেওয়ান, মদনপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি শুক্কুর আলী, ধর্ম সম্পাদক গহন আলী দেওয়ান, ধামগড় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি নাসির উদ্দিন, বন্দর থানা কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক হাজী আবুল কাশেম, বন্দর থানা যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মনির হোসেন মাস্টার, নাগিনা জোহা উচ্চ বিদ্যালয়ের সাবেক প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি গোলাপ হোসেন ভূঁইয়া, গ্রীণ কেয়ার স্কুলের সভাপতি এনামুল হক আকাশ, ৮নং ওয়ার্ড মেম্বার ইমন শাফি, আওয়ামী লীগ নেতা আক্তার হোসেন মোল্লা, কামতাল তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ এস আই আনোয়ার হোসেন, জেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আলীনূর, ছাত্রসমাজ নেতা শফিকুর রহমান, আওয়ামী লীগ নেতা ফারুক আহম্মেদ, এবায়েদুল্লাহ মাস্টার, লাইক সিদ্দিকি বাবু, রবি মিয়াজি, আওলাদ হোসেন মোল্লা, সাদেক ভূঁইয়া, মোক্তার হোসেন, গোলজার হোসেন, কবির হোসেন ও হাফেজ পারভেজ, জাপা নেতা মফিজুল ইসলাম, যুবলীগ নেতা মোস্তফা ভূঁইয়া, ছাত্রলীগ নেতা হৃদয় সহ আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীরা এবং এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও কয়েক শত স্থানীয় এলাকাবাসী উপস্থিত ছিলেন।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

%d bloggers like this: