রাজনীতির একটি ভূলের কারনে বঙ্গবন্ধুকে ১৯৭৫ সালে হারাতে হয়েছে-এমএ রশিদ

স্টাফ রিপোর্টারঃ বন্দর উপজেলাধীন মদনপুুর রহমানিয়া উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ৩০ জুলাই ২০১৯ মঙ্গলবার বিকেলে অত্র মদনপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সদস্য সংগ্রহ ও নবায়ণ ফরম বিতরণ কর্মসূচি’র উদ্বোধন করা হয়েছে। উক্ত কর্মসূচিতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বন্দর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বন্দর উপজেলা চেয়ারম্যান বীরমুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব এম এ রশিদ বলেছেন, একটি ভুল রাজনীতির জন্য বঙ্গবন্ধুকে ১৯৭৫ সালে হারাতে হয়েছে।মোশতাকের প্রেত্নারা  আজও  আপনার আশে পাশে বসে আছে। তাই মোশতাকদের আওয়ামী লীগের সদস্য বানিয়ে আরেকটি ৭৫ ডেকে আনবেন না। খালেদা জিয়ার নির্দেশে সমগ্র দেশে অরাজকতা ও নৃশংসতা করা হয়েছে। ষড়যন্ত্র কিন্তু থেমে নেই, সবাই সদা প্রস্তুত ও তৎপর থাকুন। একসময় মদনপুর থেকে নারায়ণগঞ্জের নেতৃত্ব দেয়া হতো। বঙ্গবন্ধুর আদর্শে অনুপ্রাণীত হয়ে প্রয়াত এমপি সাত্তার ভূঁইয়া আদমজী পাট কলকে নিয়ন্ত্রণ করতেন। শ্রমিকদের সুখে-দুঃখে পাশে থাকতেন। সেই ঐতিহ্যগত ইউনিয়নের যারা আওয়ামী লীগ করে তারা যাতে সদস্যের তালিকা থেকে বাদ না যায়, সেটা খেয়াল রাখার আহবান জানাচ্ছি।

অনুষ্ঠানের উদ্বোধক হিসেবে উপস্থিত থেকে অপর এক বক্তৃতায় নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আলহাজ্ব আরজু রহমান ভূঁইয়া বলেছেন, মাদক নির্মূলে সকলকে এক হয়ে কাজ করতে হবে। শেখ হাসিনার উন্নয়নকে বাধাগ্রস্থ করতে ও দেশকে একটি ব্যর্থ রাষ্ট্র হিসেবে পরিগণিত করতে কুচক্রিরা গুজব ছড়াচ্ছে। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সকলে ঐক্যবদ্ধ হয়ে এসকল অপরাজনীতি, গুজব ও যড়যন্ত্রকে প্রতিহত করতে সোচ্চার থাকুন।

মদনপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি শুক্কুর আলীর সভাপতিত্বে ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নাজিম উদ্দিনের সঞ্চালনায় উক্ত অনুষ্ঠানে উদ্বোধক হিসেবে নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আলহাজ্ব আরজু রহমান ভূঁইয়া ও বিশেষ অতিথি হিসেবে বন্দর উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব আবেদ হোসেন, সহ-সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রাজ্জাক, সাবেক সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা শফিউদ্দিন আহাম্মেদ, মদনপুর ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব এম এ সালাম, ধামগড় ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মাসুম আহম্মেদ, বন্দর উপজেলা আওয়ামী লীগের বর্তমান সাংগঠনিক সম্পাদক এম এ রউফ, প্রচার সম্পাদক আলহাজ্ব হাবিবুর রহমান মিয়া ও শ্রম সম্পাদক সোনা মিয়া উপস্থিত ছিলেন। তাছাড়া এসময় মদনপুর ইউপি’র সাবেক চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আব্দুল হাই ভূঁইয়া, ধামগড় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল আলী ভূঁইয়া ও সহ-সভাপতি হাজী নাসির উদ্দিন, মুছাপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মজিবুর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক ইসমাইল হোসেন, উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা আঃ আজিজ দেওয়ান, মদনপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক তাজুল ইসলাম মেম্বার, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক গহন আলী, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক সুরুজ মিয়া, সাংস্কৃতিক সম্পাদক আলী ভান্ডারী, সদস্য হাজী মোতালিব মিয়া, জহিরুল হক মোল্লা, মোজাম্মেল হক মুকুল, আব্দুল জলিল, পিয়ার আলী, ৬নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুসলিম প্রধান, বন্দর থানা যুবলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি দেলোয়ার হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক এস আই জুয়েল, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক রফিকুল ইসলাম, মদনপুর ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি আমান উল্লাহ, জেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আলী নূর, মদনপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি শাকিল ভূঁইয়া ও সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম, ৫নং ওয়ার্ড মেম্বার খলিলুর রহমান, ৯নং ওয়ার্ড মেম্বার হোসেন মুন্সী, ৮নং ওয়ার্ড মেম্বার ইমন শাফি, ২নং ওয়ার্ডের সাবেক মেম্বার শাহজালাল, আওয়ামী লীগ নেতা হাজী আবুল কাশেম, শফিউল্লাহ, ফারুক আহম্মেদ, মোক্তার হোসেন, হাবিবুর রহমান, জুয়েল ভূঁইয়া, আক্তার হোসেন মোল্লা, মোস্তফা ভূঁইয়া, আক্তার হোসেন ভূঁইয়া, জসীম উদ্দিন, কবির হোসেন, মোস্তফা মিয়া, হাফেজ পারভেজ হাসান, সিরাজুল ইসলাম, গোলাম রাব্বী, মকবুল হোসেন, স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা আলিম, ইলিয়াছ সহ আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের শত শত নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন এবং আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা এদিন সদস্য ফরম সংগ্রহ করেন।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

%d bloggers like this: