বন্দরে স্বল্প খরচে মাতৃসদন হাসপাতালে নাসিকের অত্যাধুনিক মেশিন প্রদান

স্টাফ রিপোর্টার(নিউজ বন্দর ২৪) : বন্দরবাসীর জন্য যে কোন রক্ত পরিক্ষার জন্য অত্যাধুনিক সেমি অল্টো বায়োক্রেমিষ্ট্রি এলানিজার মেশিন প্রদান করেছে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ডা. সেলিনা হায়াত আইভি। বাজারের থেকে ৬০ভাগ কম মূল্যে যে কোন রক্ত পরিক্ষা নিরিক্ষা করতে বন্দর শাহীমসজিদস্থ এ মেশিনটি তুলে দেন।

বুধবার ২৯মে সকাল ১১টায় বিদেশ থেকে আনা আধুনিক এ মেশিনটি নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের নগর মাতৃসদন হাসপাতালে তুলে দেওয়া হয়।
এ সময় এ আধুনিক মেশিনটির উদ্বোধণ করেন নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এ এফ এম এহতেশামুল হক।

এ সময় রোগীদের উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন,বাজার থেকে ৬০-৭০ভাগ কম মূল্যে যে কোন রক্ত পরিক্ষা করতে নগর মাতৃ সদন হাসপাতাল সর্বদা প্রস্তুত। বর্তমানে এ অত্যাধুনিক মেশিন থেকে প্রায় ৪৬টি পরিক্ষা করা হবে। পরিবর্তে সফটওয়ারের মাধ্যমে আরো ২৬ থেকে ২৮টি পরিক্ষা বৃদ্ধি করা হবে। এই নগর মাতৃসদনে গাইনী,শিশু ও জরুরী রোগীদের জন্য এই মেশিনটি বড় অবদান বয়ে আনবে। কারন মেশিনটি বন্দরবাসীর জন্য স্বয়ং নাসিক মেয়র ডা. সেলিনা হায়াত আইভ পছন্দ করে কিনেছেন। তিনি ভবিষ্যতে এই মাতৃসদন থেকে যে কোন চিকিৎসা স্বল্পমূল্যে করার উদ্যোগ নিয়েছেন। ইতিমধ্যে গাইনি ও শিশু বিষেষজ্ঞ ডাক্টার মাত্র ৯০টাকার মাধ্যমে চিকিৎসা নিচ্ছে। এই চিকিৎসা সেবা আরবান প্রাইমারী হেলথ কেয়ার সার্ভিসেস ডেলিভারী প্রজেক্ট ২য় পর্যায়ের আওতাধীণ।

তিনি আরো বলেন,নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের লক্ষ্য হলো নগরবাসীকে শান্তি ও স্বাস্থ্যসেবা প্রদান করা। এই হাসপাতাল থেকে নাসিক কর্তৃপক্ষ কোন প্রকার টাকা নিবেনা। বন্দরে রোগীদের সুচিকিৎসার জন্য নাসিক মেয়র আইভি দিন রাত কাজ করে যাচ্ছে। বাজারে এলবোমিন পরিক্ষা করতে খরচ হয় ৫০০টাকা আর এই হাসপাতালে খরচ হয় ২০০টাকা। এই হাসপাতালে দক্ষ ডাক্টারের মাধ্য মাত্র ১০হাজার টাকায় সিজার করা হয়। নরমাল রোগীদের জন্য মাত্র ১হাজার টাকা নেয়া হয়। এখানে ৩০ভাগ রোগীদের বিনামূল্যে চিকিৎসা প্রদান করা হয়।

নগর মাতৃসদনে ডা. শাহনেওয়াজ রহমানের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি উপস্থিত ছিলেন নাসিক ২১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর হান্নান সরকার,নাসিক মেডিকেল অফিসার ডা.শেখ মোস্তফা আলী,প্রজেক্ট ম্যানেজার ডা.দিল আফরোজা সোবহান,শিশু বিষেষজ্ঞ ডা. মশিউর রহমান,নওশেদ মোল্লা প্রমূখ।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

%d bloggers like this: