বন্দরে ভিন্ন আঙ্গিকে কৌশলে চলছে কোচিং বানিজ্য,রুখবে কে?


স্টাফ রিপোর্টার(নিউজ বন্দর ২৪) : বন্দরে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকরা এখনো ভিন্ন আঙ্গিকে কৌশল অবলম্বন করে চালিয়ে যাচ্ছে কোচিং বানিজ্য। কোন ক্রমেই বন্ধ করা যাচ্ছেনা তাদের শিক্ষা বানিজ্য। বুধবার (২৪এপ্রিল) দুপুরে বন্দর সোনাকান্দা মৃধাবাড়ীর ৩য় তলায় এক কোচিং ক্লাসে এ ঘটনার বর্হিঃপ্রকাশ ঘটে।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়,সোনাকান্দা এলাকার বন্দর গনমূখী আইডিয়াল স্কুল’র (বিআইএমটি) প্রধাণ শিক্ষক মোরশেদ মিয়া অর্ধশত বিভিন্ন শ্রেনীর শিক্ষার্থীদের নিয়ে অবাধে চালিয়ে যাচ্ছে কোচিং বানিজ্য। তিনি প্রতিদিন দুপুর ২টা থেকে ৪টা পর্যন্ত ৫ম শেনী থেকে ৮ম শ্রেনী পর্যন্ত ছাত্র-ছাত্রীদের কোচিং ক্লাস করান। বুধবার দুপুরে সোনাকান্দা এলাকার যুবকরা তাকে কোচিং বানিজ্যের ব্যাপারে চাপ দিলে সে বলে তার কোচিং সেন্টার কেউ বন্ধ করতে পারবেনা। কেননা,তার এক ভাই ঢাকা শিক্ষা বোর্ডে চাকুরী করে। খবর পেয়ে গনমাধ্যমকর্মীরা ওই কোচিং সেন্টারে গেলে তিনি আর কোচিং করাবেনা বলে প্রতিশ্রুতি দেয়।

এলাকাবাসী জানিয়েছে,প্রধাণমন্ত্রী শেখ হাসিনা যেখানে শিক্ষা নিয়ে কোচিং বানিজ্যের উপর চাপ প্রয়োগ করেছেন সেখানে অর্থলোভী প্রধাণ শিক্ষক মোরশেদ মিয়া অবাধে ফ্ল্যাট বাসায় কোচিং বানিজ্য করে যাচ্ছে। শিক্ষার্থীদের পরিক্ষায় অধিক নম্বর দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে চালিয়ে যাচ্ছে তার কোচিং বানিজ্য।। মাঝে মাঝে তিনি শিক্ষার্থীদের তার কাছে না পড়লে পরিক্ষায় কম নাম্বার কিংবা ফেল করিয়ে দিবেন বলেও হুমকি-ধামকি দিয়ে থাকেন। এদের এখন থেকেই আইনি ব্যবস্থা না নিলে দেশের শিক্ষা ব্যবস্থা রসাতলে যাবে। অচিরেই এসব অর্থলোভী শিক্ষদের আইনের আওতায় আনা জরুরী।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

%d bloggers like this: