বন্দরে ইংল্যান্ড প্রবাসীর স্ত্রী মরিয়ম পরকিয়ার টানে পলায়ণ

বন্দর,(নিউজ বন্দর ২৪) বন্দরে ইংল্যান্ড প্রবাসী আরিফুল ইসলাম(২৫)কে প্রান নাশের হুমকিসহ ৭লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে তার শ^শুরবাড়ীর লোজনের বিরোদ্ধে। গত ৪ এপ্রিল রাতে মোবাইলের মাধ্যমে প্রবাসীর শ্যালক ইমন মিয়া এ হুমকি প্রদান করে।

এ ব্যাপারে প্রবাসীর মা শিরিনা বাদী হয়ে বন্দর থানায় স্ত্রী মরিয়ম,শ্বশুর শফিকুল ও শ্বাশুরী সেলিনা বেগম এবং শ্যালক ইমনসহ আসামী করে বন্দর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করে।

জানা গেছে,বন্দর এসএস শাহ রোডস্থ মৃত এসএম আজাদের ছেলে আরিফুল ইসলামের সাথে বন্দর ইউলসন রোডস্থ শফিকুল ইসলামের ছেলে মরিয়ম আক্তারের সাথে ইসলামী শরিয়া মোতাবেক গত ১৪/০২/২০১৪ইং তারিখে বিবাহ সম্পন্ন হয়। উভয়ের দাম্পত্ত জীবন সুখেই কাটছিল। এর মধ্যে তাদের দাম্পত্ত জীবন আরো সুখকর হওয়ার জন্য আরিফুল ইসলাম অতিরিক্ত উপার্জনের জন্য ইংল্যান্ডে চাকুরী করতে পারি জমায়। ইংল্যান্ডে যাওয়ার পর প্রবাসী আরিফুল ইসলামের স্ত্রী মরিয়ম পরকিয়া সম্পর্কে জড়িয়ে যায় ও তাকে অন্যত্র বিবাহ দিয়েছে বলে ইংল্যান্ড প্রবাসীর পরিবারের অভিযোগ। প্রবাসী থাকাবস্থায় আরিফুল ইসলামের কাছ থেকে তার স্ত্রী মরিয়ম ও শ্বাশুরী সেলিনা ও শ্যালক ইমন অসুস্থতা ও নানা বাহানায় মানসিক চাপ সৃষ্টি করে প্রায় ৩০লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেয়। কিছুদিন পূর্বে স্ত্রী মরিয়ম অসুস্থতার কথা বলে প্রবাসী স্বামী আরিফুল ইসলামের বাড়ি থেকে গোপনে স্বর্নালংকার নিয়ে পিত্রালয়ে যাওয়ার পর থেকে শ্বশুরবাড়ীর সাথে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন রয়েছে। প্রবাসী আরিফুল ইসলাম তার মা শিরিনা বেগমকে তার স্ত্রী মরিয়মের খবর নিতে পাঠালে তারা মরিয়মকে দিবেনা ও তালাক নামা পাঠিয়ে দিবে বলে সাফ জানিয়ে দেয়। কেন দিবেনা বললে প্রবাসীর স্ত্রী মরিয়মের মা সেলিনা বেগম,শ্যালক ইমনসহ শ^শুর বাড়ীর লোকজনেরা শিরিনা বেগমকে প্রাণনাশের হুমকি ধাক্কা দিয়ে বাড়ি থেকে বের করে দেয়।

এ ব্যাপারে বন্দর থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

%d bloggers like this: