বক্তাবলীর মধ্যনগর বাজারে জিয়ার শাহাদাৎ বার্ষিকী পালিত

ফতুল্লা(নিউজ বন্দর ২৪) : মহান স্বাধীনতার ঘোষক ও বহুদলীয় গনতন্ত্রের প্রর্বতক, বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান ও সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৩৮ তম শাহাদাৎ বার্ষিকী বক্তাবলীর মধ্যনগর বাজারে অনুষ্ঠিত হয়।
শুক্রবার (৩১ মে) বাদ মাগরিব বক্তাবলী ইউনিয়ন ২ নং ওয়ার্ড বিএনপি,যুবদল,ছাত্রদল ও অঙ্গসংগঠনের উদ্যোগে দোয়া ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।
উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন,জাতীয়তাবাদী মৎস্যজীবি দলের কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক সাধারন সম্পাদক ও ডাকসুর সাবেক আপ্যায়ন সম্পাদক মোঃ মিলন মেহেদী।
২ নং ওয়ার্ড বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক দীল খুশ আলী এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ইউনিয়ন বিএনপির সহ সভাপতি মোঃ নুর হোসেন,বক্তাবলী ইউনিয়ন যুবদলের আহবায়ক হাসান আলী,বিএনপি নেতা মোঃ কবির হোসেন, রাসেল প্রধান,মোঃ মাসুদ শিকদার,ফজলুল হক শিকদার,আনোয়ার হোসেন বেপারী,আসগর আলী শিকদার,সলিম প্রধান,মীর আলমগীর,যুবদল নেতা হালিম আজাদ,মোঃ শরীফ হোসেন,আবুল খায়ের,সাবেদ আলী,রমজান,জুয়েল,কবির হোসেন,মোঃ মাসুম, হৃদয় প্রমুখ।
প্রধান অতিথি মিলন মেহেদী বলেন,জিয়া স্বাধীনতার ঘোষনা না দিলে দেশ স্বাধীন হতোনা।দিশেহারা জাতি জিয়ার ঘোষনা শুনে দেশ স্বাধীন করতে ঐক্যবদ্ধ হয়ে যুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়ে। আওয়ামী লীগের বড় কোন নেতা মুক্তিযুদ্ধে ভুমিকা পালন করেনি।অথচ তারা মুক্তিযুদ্ধের চেতনার দাবী করে বিভাজন সৃষ্টি করেছে।
বাকশালের শাসন বিলুপ্ত করে বহুদলীয় গণতন্ত্র প্রর্বতন করে জিয়া। যার কারনে আজকের প্রধানমন্ত্রী রাজনীতি করতে পারছেন।অবিলম্বে বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিতে সরকারের প্রতি জোর দাবী জানান।
ফতুল্লা থানা যুবদলের সিনিয়র সহ সভাপতি ও বক্তাবলী ইউনিয়ন যুবদলের আহবায়ক হাসান আলী বলেন, আজাদ বিশ্বাসের মতো চিহিৃত দালাল এর মতো নেতা ফতুল্লা বিএনপির নেতৃত্ব দিবে তা মেনে নেয়া যায়না। গনতন্ত্র আজ বিপর্যস্ত। দেশ আজ কারাগারে পরিনত হয়েছে।বিএনপির নেতাকর্মীরা মানবেতর জীবন যাপন করছে।দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি দিতে সরকারের প্রতি আহবান জানান।যোগ্যদের নিয়ে ফতুল্লা থানা ও বক্তাবলী ইউনিয়ন যুবদলের কমিটি গঠন করা হবে।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

%d bloggers like this: