প্র্রবাসীর স্ত্রীকে ফুসলিয়ে স্বামীর অর্থ আত্মসাৎ ও লুটপাটের অভিযোগ

স্টাফ রিপোর্টার(নিউজ বন্দর ২৪) : পরকীয়া প্রেমের জের ধরে শরীফ নামক এক ঠকবাজ প্রবাসীর স্ত্রী ফাতেমা মনিকে ফুসলিয়ে স্বামী ফারুকের সম্পত্তি আত্মসাৎ ও লুটপাটে মত্ত রয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনার বিবরণে জানা যায়, নারায়ণগঞ্জের টানবাজারের ১০নং পিএম রায় রোডের বাসিন্দা রশন আলী সরকারের ছেলে শরিফ সরকার ওরফে পটু শরিফ প্রবাসীর স্ত্রী ফাতেমাকে অনেক কৌশলে তার হেফাজতে এনে রূপগঞ্জে সাব রেজিস্টারের অফিসে ০২/১১/২০১৬ই তারিখে ৯৯৩৬/১৬নং আম মোক্তার দলিল করে রূপগঞ্জ থানার দিঘী বরাবরের ১৩ শতাংশ বাড়ী প্রবাসীর নাম দিয়ে অন্য লোককে দাড়া করায় এবং তার ২০ দিন পর ২২/১১/২০১৬ইং তারিখে শরিফ গ্রহীতা সেজে ১০৭৬৭/১৬নং একটি সাব কবলা দলিল করেন এবং ২৯/১২/২০১৬ইং শরীফের নামে নামজারী করেন যার মোকদ্দমা নং ৯২৮/২০১৬। দলিলের সনাক্তকারী আজিজুল হক, পিতা-মৃত আসাদ আলী মুন্সী, ৪৬০ শাহাজাদা রোড, নারায়ণগঞ্জ এবং দুটি দলিল লিখক সৈয়দ আল মামুন, সনদ নং ২৩৭, সদর সাব রেজিস্ট্রি অফিস, নারায়ণগঞ্জ তাদের বিরুদ্ধে ০২/২০১৯ নং একটি মামলা করা হয়েছে এবং শরিফ ও ফাতেমার নামে জেলা জজ ২য় আদালত নারায়ণগঞ্জে ৮১৯/২০১৮নং একটি মোকদ্দমা রয়েছে। ফাতেমার স্বামী ফারুক প্রবাসে থাকার সুবাদে ফাতেমাকেও প্রবাসে নিয়ে যায় এবং তাদের দুইটি সন্তানও সেখানে রয়েছে। কিন্তু ফাতেমা দেশে এসে নানান পরকীয়ায় জড়িয়ে যায় এবং শরিফের ফাদে পা বাড়িয়ে তার প্ররোচনায় পড়ে উভয় মিলে তার স্বামীর সম্পত্তি আত্মসাৎ করেছে বলে সম্পৃক্তদের সাথে কথা বলে জানা যায়।
বর্তমানে প্রতারক ফাতেমা ও শরিফের নামে মামলা চলমান থাকলেও ভূক্তভোগী ফারুক নারায়ণগঞ্জ পুলিশ সুপারের নিকট আইনের সুশাসন প্রত্যাশা করেছেন এবং অধিকতর তদন্ত সাপেক্ষে দোষীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়ার অনুরোধ জ্ঞাপন করেছেন।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

%d bloggers like this: