মুক্তিযোদ্ধার আকুতি: ভেজাল খাবার রোধে চাই নির্বাহী ম্যাজিষ্টেটের হস্তক্ষেপ


স্টাফ রিপোর্টার(নিউজ বন্দর ২৪)  বন্দরে পবিত্র মাহে রমজানকে পুঁজি করে বিভিন্ন ফলের দোকানসহ মাছ বাজারগুলোতে দেদারসে বিক্রি হচ্ছে টেম্পারহীণ খেজুর,মালটা ও পচাঁমাছ এমনই অভিযোগ করেছে ভূক্তভোগীরা। বুধবার বিকেলে বন্দর বাসষ্ট্যান্ড,ফরাজীকান্দা বাজার,নবীগঞ্জ বাসষ্ট্যান্ডসহ বিভিন্ন ফলের ও মাছ বাজারের ক্রেতাদের সাথে আলাপকালে এমন অভিযোগ করেন তারা।

এ ব্যাপারে নাম প্রকাশ না করার শর্তে বন্দর শাহীমসজিদ এলাকার এক মুক্তিযোদ্ধা জানান,স্বাধীণ দেশে বাস করে আমরা আর ভেজাল খাবার খেতে চাইনা। পবিত্র মাহে রমজানকে পুজি করে কিছু অসাধু ব্যবসায়ী বাসী মাংস,পচা মাছ,টেম্পারবিহীণ খেজুর কার্টুনে নতুন ষ্টিকার লাগিয়ে হরমামেশা বিক্রি করে যাচ্ছে। এতে করে সারাদিন রোজা রাখা ক্রেতারা বিভিন্ন পানিবাহিত রোগে আক্রান্ত হয়ে পড়ছে। সাধারন ক্রেতারা তাদের বিরোদ্ধে প্রতিবাদ করতে সাহস পাচ্ছেনা। কেননা,তাদের রয়েছে সিন্ডিকেট। গত ৭মে মঙ্গলবার আমার সহধর্মিনী বন্দর বাসষ্ট্যান্ড থেকে খেজুর কিনে এনে ইফতারের সময় খেয়ে বমি ও পানিবাহিত রোগে ভূগছে। আমি নিশ্চিৎ ওই ফলের টেম্পার ছিলনা। প্রখর রৌদ্রের উত্তাপে আরো অনেক রোজাদাররা ভেজাল ইফতার সামগ্রী খেয়ে পতিত হচ্ছে নানা রোগে। তাই বিভিন্ন ফল ও কাচা বাজারগুলোতে এই রমজান মাসে রোজাদারদের কথা চিন্তা করে মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে ভেজাল বিক্রেতাদের ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে সাজা প্রদানের জন্য বন্দর ইউএনও পিন্টু বেপারীর হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

%d bloggers like this: