কারও চাপিয়ে দেয়া বিনিয়োগ চাই না : জাতিসংঘকে পরিকল্পনামন্ত্রী

দেশের উন্নয়নের জন্য বিনিয়োগ প্রয়োজন, তবে কারও চাপিয়ে দেয়া বিনিয়োগের প্রয়োজন নেই বলে জাতিসংঘের প্রতিনিধি দলকে জানিয়েছেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান।

মঙ্গলবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ে মন্ত্রীর নিজ দফতরে জাতিসংঘের বিভিন্ন সংস্থার সমন্বয়ে এক প্রতিনিধি দল দেখা করতে এলে তাদেরকে এ কথা জানান এম এ মান্নান।

বাংলাদেশে নিযুক্ত জাতিসংঘের আবাসিক সমন্বয়কারী মিয়া সেপ্পোসহ এই প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠক শেষে পরিকল্পনামন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমাদের পছন্দ বরং ওই বিনিয়োগ, যে বিনিয়োগ আমাদের ভেতর থেকে উঠে আসবে। কারও চাপিয়ে দেয়া বিনিয়োগ আমরা চাই না।’

তিনি জানান, বিনিয়োগ আগ্রহও দেশের ভেতর থেকে উঠে আসবে। মন্ত্রী বলেন, ‘প্রতিটি গ্রামের, ছোট দোকানদারের, যারা চাষবাস করছেন, তাদেরও মতামত থাকবে বিনিয়োগ প্রসঙ্গে।’

এম এ মান্নান বলেন, ‘ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ নিয়ে গেছি। গ্রামকে শহরে রূপ দিতে কাজ করছি। গ্রামে সব থেকে বেশি দরিদ্র মানুষ বাস করে। তাই আমাদের মূল কার্যক্রম গ্রামে শুরু হবে। আমরা মানুষের চাওয়া-পাওয়াকে প্রাধান্য দিয়ে কাজ করছি।’

বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোকে (বিবিএস) শক্তিশালী করতে জাতিসংঘ এগিয়ে আসতে চায় বলেও জানান পরিকল্পনামন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘বিবিএসকে শক্তিশালী করতে জাতিসংঘ এগিয়ে আসতে চায়। আমরা বলেছি সবার জন্য বাংলাদেশের দরজা খোলা।’

মন্ত্রী আরও বলেন, ‘সব সংস্থার সঙ্গে বৈঠক করেছি। তারা আমাদের প্রবৃদ্ধির মাত্রা নিয়ে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছে।’

বাংলাদেশ স্বাস্থ্য ও সামাজিক সুরক্ষা খাতে কী ধরনের খরচ করছে, এ বিষয়েও জানতে চায় জাতিসংঘের এই প্রতিনিধি দল বলেও জানান এম এ মান্নান।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

%d bloggers like this: