রূপগঞ্জে দাবীকৃত টাকা না পেয়ে একই পরিবারের ৩ সদস্যকে পিটিয়ে আহত

রুপগঞ্জ প্রতিনিধি : নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে দাবিকৃত চাঁদার টাকা না পেয়ে সন্ত্রাসীরা জসিম উদ্দিন (৪৫) নামে এক মুদিমনোহরী দোকানীকে পিটিয়ে আহত করার পর ফের ওই ব্যবসায়ীর তিন ছেলেকে স্থানীয় চাঁদাবাজরা পিটিয়ে ও মাথা ফাটিয়ে আহত করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। ব্যবসায়ীর মালামালসহ পুরো দোকানঘর ভেঙ্গে দেয় তারা।

এ ঘটনার পর এলাকায় আতঙ্ক বিরাজ করছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলার ভুলতা এলাকার এওয়ান পোলার গার্মেন্টেসের সামনে ফের এ ঘটনা ঘটে।
ব্যবসায়ী জসিম উদ্দিন জানান, তিনি উপজেলার ভুলতা এলাকায় এওয়ান পোলার গার্মেন্টেসের সামনে জসিম ষ্টোর নামে একটি ষ্টেশনারী দোকান দিয়ে দীর্ঘ দিন ধরে ব্যবসা করে আসছে। উপজেলার টেক বলাইখা এলাকার সন্ত্রাসী ও চাঁদাবাজ বাবু, কেল্লা রাসেল, মামুন, ফেন্সি কামাল বেশ কিছ ুদিন ধরে তার কাছে ২০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করে আসছে। তাদের দাবিকৃত চাঁদার টাকা না পেলে তারা তাকে শান্তিমত ব্যবসা করতে দিবেনা বলে হুমকি ধামকি দিয়ে দেয়। গত বুধবার দুপুরে ওই চাঁদাবাজরা দেশীয় অস্ত্র শস্ত্রে সজ্জিত হয়ে জসিম উদ্দিনের দোকানে প্রবেশ করে তার কাছে চাঁদা দাবি করেন। চাঁদা দিতে অস্বীকার করায় ক্ষিপ্ত হয়ে চাঁদাবাজরা জসিম উদ্দিনের দোকানে হামলা ভাংচুর ও নগদ ৩৫ হাজার টাকা লুট করে নেয়। ভাংচুরে বাঁধা প্রদান করায় চাঁদাবাজরা জসিম উদ্দিন ও তার ছেলে কামরুল হাসান লিমনকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে। এ ঘটনায় ব্যবসায়ী জসিম উদ্দিন রূপগঞ্জ থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। এছাড়া বিষয়টি নিয়ে বিভিন্ন জাতীয় ও স্থানীয় দৈনিকে সংবাদ প্রকাশ হয়।
বৃহস্পতিবার দুপুরে ফের চাঁদাবাজরা ধারালো ও দেশীয় অস্ত্রেশস্ত্রে সজ্জিত হয়ে জসিম উদ্দিনের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে অতর্কিত হামলা চালায়। এসময় জসিম উদ্দিনকে না পেয়ে তার তিন ছেলে তাজরীন হোসেন শামিম, সাইফুল ইসলাম বাবু ও কামরুল হাসান রিমনকে এলোপাথারি ভাবে পিটিয়ে আহত করে। এক পর্যায়ে তাদের মধ্যে এক জনের মাথা ফাটিয়ে দেয়। পরে স্থানীয়রা তাদের ইউএসবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

স্থানীয় ও এলাকাবাসীর অভিযোগ করে জানান, ভুলতা, গোলাকান্দাইল, আউখাব, বলাইখা, নতুন বাজারসহ বিভিন্ন এলাকায় ছিনতাই, চাঁদাবাজি, ডাকাতি, বিভিন্ন গার্মেন্টস শ্রমিকদের বেতনভাতা ও মোবাইল সেট ছিনিয়ে নেয়াসহ অপরাধমুলক কর্মকান্ড করে আসছে এ চাঁদাবাজ চক্রটি । এ ব্যপারে এ চক্রের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে রূপগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ও পুলিশ সুপারের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন এলাকাবাসী।

এ ব্যপারে ভুলতা পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ইন্সপেক্টর শহিদুল ইসলাম বলেন, চক্রটিকে গ্রেফতার করতে পুলিশ তৎপর রয়েছে। যে কোন মুল্যে এদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনা হবে।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

%d bloggers like this: