বিজয়ী রশিদ,সানু ও শান্তাকে যুবলীগ নেতা নজরুল ইসলাম বাদশার অভিনন্দন

স্টাফ রিপোর্টার(নিউজ বন্দর ২৪) : বন্দর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে উপজেলা চেয়ারম্যান পদে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় বীরমুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব এম এ রশিদ ও একটি সুশৃঙ্খল ভোটের মাধ্যমে ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) পদে সানাউল্লাহ সানু ও ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা) পদে ছালিমা হোসেন শান্তার নিরঙ্কুশ বিজয় অর্জনে বিজয়ীদের শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন ধামগড় ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি পদ প্রত্যাশি নজরুল ইসলাম বাদশা।

এ বিষয়ে গতকাল এক বিবৃতিতে তিনি গণমাধ্যমকে জানান, ‘বীরমুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব এম এ রশিদ বন্দর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হিসেবে দীর্ঘদিন দক্ষতার সহিত নিজের উপর অর্পিত দায়িত্ব পালন করে তিনি বন্দরের সকল আপামর জনসাধারণের কাছে একজন যোগ্য ও প্রিয় ব্যক্তিত্ব হিসেবে একটি সুদৃঢ় অবস্থান অর্জন করতে সক্ষম হয়েছেন। সানাউল্লাহ সানু পূর্বেও উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়ে দক্ষতার সহিত নিজের উপর অর্পিত দায়িত্ব পালন করে গেছেন। তাছাড়া উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভানেত্রী হিসেবে সুনাম অর্জনকারী ছালিমা হোসেন শান্তা তিনিও সাংগঠনিকভাবে দক্ষ ও মেধাবী একজন ব্যক্তি। সত্যিকার অর্থেই যোগ্য ও দক্ষ প্রার্থী হিসেবে তারা বিজয়ী হলেন বলে আমাদের বিশ্বাস। তাদেরকে আমি শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানাচ্ছি।

নারায়ণগঞ্জ-৫ (সদর ও বন্দর) আসনের এমপি বীরমুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব একেএম সেলিম ওসমানের নেতৃত্বে উপজেলা চেয়ারম্যান বীরমুক্তিযোদ্ধা এম এ রশিদ, ভাইস চেয়ারম্যান সানাউল্লাহ সানু ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ছালিমা হোসেন শান্তার নিরলস প্রচেষ্টায় বন্দরের উন্নয়ন পূর্বের যে কোন সময়ের চেয়ে বেশী হবে এবং তাদের সঠিক সিদ্ধান্তে একটি আধুনিক ও ডিজিটাল উপজেলা হিসেবে অত্র বন্দর উপজেলা গড়ে উঠবে বলে আমরা মনে করি। আমরা তাদের সফলতা কামনা করছি’।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

%d bloggers like this: