বন্দরে স্বামী-স্ত্রীকে কুপিয়েছে ওসমানগং



স্টাফ রিপোর্টার(নিউজ বন্দর ২৪) : বন্দরে ফলের দোকানের সিমানা বিরোধের জের ধরে ফল ব্যবসায়ী লিটন(৩৮) ও তার স্ত্রী ফাতেমা(৩০)কে কুপিয়েছে খলিল মেম্বারের সহযোগী ওসমানগং। সোমবার ১০জুন সকালে মদনপুর বাসষ্ট্যান্ড এলাকায় এ ঘটনাটি ঘটে।

এ ব্যাপারে ফল ব্যবসায়ী লিটন বাদী হয়ে অভিযুক্ত ওসমানসহ ১০/১২জনকে আসামী করে বন্দর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়।

তথ্য সুত্রে জানা যায়,বন্দর উপজেলাধীণ মদনপুর ইউনিয়নের চানপুর গ্রামের ইদ্রিছ মিয়ার ছেলে ফল ব্যবসায়ী লিটন প্রায় ৪মাস যাবৎ মদনপুর বাসষ্ট্যান্ডে ফলের ব্যবসা করে আসছিল। পাশ^বর্তী অপর ফল ব্যবসায়ী উশৃঙ্খল ওসমান কিছুদিন যাবৎ দোকানের সিমানা বিরোধকে কেন্দ্র করে ফল ব্যবসায়ী লিটনকে হুমকি ধামকি দিয়ে বেরাচ্ছে। প্রায় সময়ই ওসমান ও তার সহযোগীরা খলিল মেম্বারের সেল্টারে নিরিহ ফল ব্যবসায়ী লিটন ও তার স্ত্রীকে গালমন্দ করে এবং অন্যত্র গিয়ে ব্যবসা করতে বলে অন্যথায় প্রানে মেরে ফেলার হুমকি দেয়।
এর ধারাবাহিকতায়,সোমবার সকালে ফল ব্যবসায়ী লিটনকে মদনপুর বাসষ্ট্যান্ড থেকে ডেকে নিয়ে খলিল মেম্বারের সহযোগী ওসমান,কামাল,নুরুল ইসলাম,আশরাফুল,দিপু,সুজন,ছিদ্দিকসহ অজ্ঞাতনামা আরো ৭/৮জনকে নিয়ে পূর্বপরিকল্পিতভাবে লাঠি ও লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে আহত করে। ফল ব্যবসায়ী লিটনের স্ত্রী ফাতেমা তার স্বামীকে বাচাঁতে এগিয়ে আসলে তাকেও শ্লিলতাহানীসহ কুপিয়ে মারাতœক আহত করে।

পরে তারা লিটনের ফলের দোকানে তান্ডপ চালিয়ে ৮/১০হাজার লিচুসহ বিভিন্ন প্রকারের ফল ফলাদী ধ্বংস করে ৫০হাজার টাকা লুট করে পালিয়ে যায়। আহতদের আর্ত চিৎকারে আশপাশের লোক এগিয়ে এসে তাদের উদ্ধার করে নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে প্রেরন করে।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

%d bloggers like this: