ফুঁসলিয়ে অপহরণ করে ২ বোনকে ২০ দিন ধর্ষণ:অপহৃত উদ্ধার: ২ ধর্ষক আটক

সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি : ফুসলিয়ে অপহরণ করা হয় চাচাতো জেঠাতো দুই বোনকে। এরপর এক রুমেই দুইজনকে অসংখ্যবার ধর্ষণ করে দুই ধর্ষক। সিদ্ধিরগঞ্জের আইয়ুবনগর এলাকা থেকে ৭ম শ্রেণীর এক ছাত্রী ও তার চাচাতো বোনকে কৌশলে অপহরণকরে দুই বন্ধু। শুক্রবার দিবাগত মধ্যরাতে ফতুল্লা থানাধীন গিরিধারা এলাকার জনৈক সেলিনা আক্তারের বাসা থেকে উদ্ধার করে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) হাফিজুর রহমান।

গ্রেফতারকৃত বর্বর দুই ধর্ষক হল- আল-আমিন (২২) ও তার বন্ধু রিয়াদ (২৫)। এর আগে ২১ জুন ধর্ষিতার বাবা বাদী হয়ে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় একটি জিডি এন্ট্রি করেন। শনিবার দুপুরে দুই ধর্ষককে আদালতে পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, ২ জুন বিকাল সাড়ে ৩ টায় সিদ্ধিরগঞ্জের আইয়ুবনগর এলাকা থেকে দুই চাচাতো জেঠাতো বোনকে অপহরণ করে আল-আমিন ও তার বন্ধু রিয়াদ। পরে তাদেরকে ফতুল্লা থানাধীন গিরিধারা এলাকার জনৈক সেলিনা আক্তারের বাসায় নিয়ে যায় ঐ দুই বন্ধু। ঐ বাসার এক কক্ষেই দুই বন্ধু অসংখ্যবার তাদেরকে ধর্ষণ করে বলে উল্লেখ করা হয় মামলায়। ঐ দুই বোনকে তাদের স্বজনরা খোঁজাখুঁজি করে না পেয়ে ২১ জুন এক অপহৃতার বাবা সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় একটি জিডি করেন। ঐ জিডির সূত্র ধরে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) হাফিজুর রহমান তাদেরকে উদ্ধার এবং দুই ধর্ষককে গ্রেফতার করে। ধর্ষক আল-আমিনের পিতার নাম বাদল। ধর্ষক রিয়াদের পিতার নাম আজিজ হোসেন। তদের বাড়ি ভোলার চরফ্যাশন থানার কুলসুমবাগ এলাকায়।
সিদ্ধিরগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সেলিম মিয়া জানান, শনিবার (২২ জুন) দুপুরে তাদেরকে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। এ ব্যাপারে এক অপহৃতার বাবা ২১ জুন জিডি শুক্রবার দিবাগত শেষ রাতে (২২ জুন) মামলা দায়ের করেছেন।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

%d bloggers like this: