পর্ণোগ্রাফি মামলায় সাদ্দাম ১দিনের রিমান্ডে

ফতুল্লা(নিউজ বন্দর ২৪) : ফতুল্লা থানার একটি পর্ণোগ্রাফি নিয়ন্ত্রন ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন মামলায় গ্রেফতারকৃত আসামী সাদ্দাম হোসেন শুভকে ১ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

এর আগে গত ( ২৫ জুন) পুলিশ ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করে শুভকে আদালতে তোলেন। পরে আদালত রিমান্ড না মুঞ্জুর করে ২ দিনের জেল গেটে জিজ্ঞাসাবাদের আদেশ দেন। দুইদিনের জেল গেটে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে পুলিশ আবার ৮ দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে তোলেন। পরে রিমান্ড শুনানী শেষে আদালত শুভকে ১ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করে।

মঙ্গলবার (২ জুলাই ) দুপুরে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট ফাহমিদা খাতুন এর আদালতে এ রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

রিমান্ড প্রাপ্ত আসামী সাদ্দাম হোসেন শুভ গাজীপুর শ্রীপুর এলাকার মোঃ সিরাজ উদ্দিনের ছেলে বর্তমানে পশ্চিম নন্দলালপুর মসজিদ গলি মিজানুর রহমানের বাড়ীর ভাড়াটিয়া।

প্রসঙ্গত, এই মামলার আরেক আসামী গ্রেফতারকৃত রাজন খান রাকিব বাদিনী শান্তা ইসলাম ময়নার এর সাথে ঘর সংসার করাকালীন সময়ে সুকৌশলে অন্তরঙ্গ, অশ্লীল, আপত্তিকর ছবি, ভিডিও ধারণ করে রাখে। পরে রাকিব ফেসবুকে জীবন নামের একটি ফেক বা ভূয়া আইডি খুলে চলতি বছরের ৬ মে দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে শান্তার কিছু অশ্লীল আপত্তিকর ছবি প্রকাশ করে।

পরবর্তীতে ২২ মে সন্ধ্যা ৭টার দিকে উক্ত ভূয়া আইডি থেকে গ্রেফতারকৃত অপর আসামী মোঃ সাদ্দাম হোসেন শুভ এর ফেসবুক আইডির ম্যাসেঞ্জারে শান্তার ওই আপত্তিকর অশ্লীল ছবি ও ভিডিও শেয়ার করে।

সাদ্দাম হোসেন শুভ এ ছবি পেয়ে এক পর্যায়ে শান্তার কাছ থেকে ১লাখ টাকা দাবী করেন এবং টাকা না দিলে বাদিনির অশ্লীল ছবি গণমাধ্যমে ছড়াইয়া দেওয়ার হুমকি প্রদান করেন।

একপর্যায়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমে ওই ছবি এডিট করে অশ্লীল ছবি তৈরী করে বিভিন্ন গলমাধ্যমে প্রকাশ করে।

এ ঘটনায় শান্তা ইসলাম ময়না ফতুল্লা থানায় পর্ণোগ্রাফি নিয়ন্ত্রন ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দায়ের করলে পুলিশ প্রথমে সাদ্দাম হোসেন শুভ ও পরে রাজন খান রাকিবকে গ্রেফতার করেন।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

%d bloggers like this: