না’গঞ্জে করোনার টিকা নিবন্ধনে বস্তির ঘরে ঘরে সদর ইউএনও নাহিদা বারিক

জাহাঙ্গীর হোসেনঃ ভাসমান জনগোষ্ঠীর ‘সুরক্ষা’য় করোনার টিকা গ্রহণকারীর নিবন্ধন হচ্ছে বাড়িতে বাড়িতে গিয়ে। বুধবার (১০ ফেব্রুয়ারী) ফতুল্লার তল্লা এলাকায় নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাহিদা বারিকের উদ্যোগে এমন কর্মসূচি হাতে নিয়েছে সদর উপজেলা প্রশাসন। এ কার্যক্রমের প্রথম দিনেই ফতুল্লা তল্লা এলাকার কল্যানী আদর্শ গ্রামের বস্তিতে ৪০ বা তদূর্ধ্ব বয়সী ভাসমান জনগোষ্ঠীর টিকার নিবন্ধন করা হয়। এই কার্যক্রম নিজে থেকে তদারকি করেন সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাহিদা বারিক। নিবন্ধন শেষে প্রত্যেককে টিকা কার্ডের একটি প্রিন্টেড কপি প্রদান করা হয় যাতে তারা টিকাকেন্দ্রে এই টিকা কার্ডের কপি দেখিয়ে ভ্যাকসিন গ্রহন করতে পারেন। কোভিড-১৯ এর ভ্যাকসিন এর নিবন্ধন শেষে টিকা কার্ড পেয়ে বস্তির জনসাধারণ মহান আল্লাহর কাছে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর জন্য দোয়া করেন এবং সরকারের বিনামূল্যে এই টিকা প্রদানের উদ্যোগকে সাধুবাদ জানান। সদর ইউএনও নাহিদা বারিক জানান, উপজেলায় জনসংখ্যা খাতা কলমে প্রায় ১৪ লাখ হলেও বাস্তবে আরও বেশি লোক এখানে বাস করে। যাদের মধ্যে ভাসমান জনগোষ্ঠী প্রচুর সংখ্যক। উপজেলা প্রশাসন এই অধিক সংখ্যক জনগোষ্ঠীকে কাঙ্খিত সেবা প্রদান করতে বদ্ধপরিকর রয়েছে। এর আগে উপজেলা প্রশাসনিক ভবনের ‘হেল্প ডেস্ক’ থেকেও ৪০ বা তদূর্ধ্ব বয়সী ভাসমান জনগোষ্ঠীদের এই নিবন্ধন কার্যক্রমটি পরিচালিত হচ্ছে। এর পাশাপাশি প্রতিটি ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টার থেকেও এই নিবন্ধন কার্যক্রমে সহায়তা করা হচ্ছে।

Seen by Jahangir

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

%d bloggers like this: