জাতীয় সংসদে সচিবদের পদমর্যাদা ১০ম গ্রেডে উন্নীতকরণের দাবি জানালেন এমপি খোকা

সোনারগাঁ প্রতিনিধি (নিউজ বন্দর ২৪) : নারায়ণগঞ্জ-৩ (সোনারগাঁ) আসনের সংসদ সদস্য ও জাতীয় পার্টির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব লিয়াকত হোসেন খোকা ২৮ এপ্রিল রবিবার একাদশ জাতীয় সংসদের দ্বিতীয় অধিবেশনে ইউনিয়ন পরিষদের সচিবদের পদমর্যাদা ১০ম গ্রেডে উন্নীতকরণ ও সরকারি কোষাগার থেকে শতভাগ বেতন ভাতা দেওয়ার দাবি জানিয়েছেন।
জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ অধিবেশনে কার্যপ্রণালী-বিধির ৭১ বিধি অনুযায়ী জরুরি জন-গুরুত্বসম্পন্ন বিষয়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও এলজিআরডি মন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করে এমপি লিয়াকত হোসেন খোকা বলেন, স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ যে অঙ্গটি গণমানুষের ভাগ্য পরিবর্তনে অগ্রণী ভূমিকা পালন করে সেটি হলো ইউনিয়ন পরিষদ। এটি বাংলাদেশের আদি প্রতিষ্ঠান এবং সরকারের গুরুত্বপূর্ণ সেবা মানুষের কাছে পৌঁছে একমাত্র প্রতিষ্ঠান। ইউনিয়ন পরিষদের সাচিবিক দায়িত্ব পালনের জন্য প্রত্যেক ইউনিয়নে একটি করে মোট ৪৫৭১টি ‘ইউনিয়ন পরিষদের সচিব’ পদ রয়েছে। সরকারের তৃনমূল পর্যায়ে প্রায় ৩৯টি মন্ত্রণালয়ের গুরুত্বপূর্ণ কাজ তারা সম্পন্ন করেন। এমনকি ইউনিয়ন তথ্য সেবাকেন্দ্রের মাধ্যমে সরকারের গুরুত্বপূর্ণ তথ্য তৃনমূলে পৌঁছে দিয়ে ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে এই ৪৫৭১ জন ইউনিয়ন পরিষদ সচিব মুখ্য ভূমিকা পালন করছেন। সরকারের সকল কর্মচারীদের নির্ধারিত অফিস সময়সূচি থাকলেও তাদেরকে রাত পর্যন্ত জনগণকে সেবা দিতে হয়। বর্তমান সরকার গ্রাম আদালতকে শক্তিশালী করার কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। এই আদালতের সাচিবিক দায়িত্বও তাদের উপর ন্যাস্ত। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান তাদেরকে জাতীয় বেতন স্কেল প্রদান করেন। কর্মচারীবান্ধব বর্তমান সরকারের বিগত ২ মেয়াদে জনপ্রশাসনে ৮২টি পদ আপগ্রেড হলেও ইউনিয়ন পরিষদের সচিবগণ এখনো ১৪তম গ্রেডেই অবস্থান করছেন।
এমপি খোকা আরো বলেন, সরকারি নীতিমালা অনুযায়ী ইউনিয়ন পর্যায়ে যতগুলো কমিটি আছে সেখানে ইউপি চেয়ারম্যান সভাপতি ও ইউপি সচিব সদস্য সচিবের দায়িত্ব পালন করেন। ঐ সকল কমিটিতে ১০ম গ্রেডের যেমন- উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার, উপ-সহকারী প্রকৌশলী, উপ-সহকারী কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা, উপ-সহকারী কমিউনিটি স্বাস্থ্য কর্মকর্তা এবং প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকগণ সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। এ সকল সদস্য ১০ম গ্রেডের কর্মকর্তা, কিন্তু ইউপি সচিবগণ ১৪তম গ্রেডেই রয়ে গেছেন।
তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে ইউনিয়ন পরিষদ সচিবদের পদমর্যাদা ১০ম গ্রেডে উন্নীতকরণসহ তাদের বেতন ভাতা শতভাগ (১০০%) সরকারি কোষাগার থেকে প্রদান এখন সময়ের দাবি।
উল্লেখ্য, এমপি লিয়াকত হোসেন খোকা সম্প্রতি ইউনিয়ন পরিষদের সচিবদের পদমর্যাদা ১০ম গ্রেডে উন্নীতকরণ ও সরকারি কোষাগার থেকে শতভাগ বেতন ভাতা দেওয়ার দাবি জানিয়ে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী তাজুল ইসলাম বরাবর একটি উপানুষ্ঠানিক পত্র দিয়েছিলেন। এরপর রবিবার জাতীয় সংসদে তিনি একই দাবি জানান।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

%d bloggers like this: